হারারেতে ফেনীর ব্যাটিংয়ের স্মৃতি স্মরণ করছিলেন সাইফউদ্দিন

জিম্বাবুয়ে সফরের আগে নিজের দুটি ব্যাট মেরামতের জন্য ফেনী থেকে রাজশাহীতে পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। মেরামত হয়ে আসার বদলে ব্যাট দুটি তাঁর হাতে এসেছিল ভাঙা অবস্থায়।

সাইফউদ্দিন শেষ পর্যন্ত জিম্বাবুয়েতে কোন ব্যাট নিয়ে গেছেন, সেটি তিনিই জানেন ভালো। তবে যে ব্যাটেই হোক না, হারারেতে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দলের জয়ে অবদান রেখেছে তাঁর ব্যাট। আর চাপের মুহূর্তে ব্যাটিংয়ের সময় তাঁর কাজে এসেছে সেই ফেনী, চট্টগ্রামে খেলা ম্যাচগুলোর অভিজ্ঞতাই।

এর আগে ২৭ ওয়ানডের ক্যারিয়ারে সাইফউদ্দিনের ফিফটি আছে দুটি, এর মধ্যে জেতা ম্যাচে একটি। ক্যারিয়ারে এরপর সর্বোচ্চ ছিল অপরাজিত ২৮, সেটিও এসেছিল প্রথম ইনিংসে। রান তাড়া করে বাংলাদেশ জিতেছে, এমন ওয়ানডে ম্যাচে এর আগে কখনো তিনি ব্যাটিং করেননি!

টি-টোয়েন্টিতেও রান তাড়া করে জেতা ম্যাচে ব্যাটিং করেছেন মাত্র একবার। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সাইফউদ্দিন যখন ক্রিজে আসেন, জয় থেকে ৬৯ রান দূরে বাংলাদেশ। এমন চাপের মুহূর্তে রোববারের ম্যাচটি তাই সাইফউদ্দিনের জন্য ‘নতুন’ অভিজ্ঞতা, অন্তত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে।সাইফউদ্দিন বলেছেন, এ ক্ষেত্রে তাঁর কাজে এসেছে ফেনীতে খেলা এমন পরিস্থিতির এক ম্যাচ, ‘সত্যি বলতে আমার ক্যারিয়ার শুরু বয়সভিত্তিক দলে ব্যাটসম্যান হিসেবে। এর চেয়ে বড় চাপের মুহূর্তে আমি ব্যাটিং করেছি, যখন বয়সভিত্তিক দলে ফেনীর হয়ে খেলি। তখন দেখা গেছে ৪০ রানে ৫-৬ উইকেট পড়ে যেত। তখন একদিকে আমি খেলে স্কোর ২০০ পর্যন্ত নিয়ে যেতাম। তবে ওই পরিস্থিতি তো ছিল বয়সভিত্তিক দলে, কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের চাপ অবশ্যই আলাদা। চট্টগ্রামের হয়েও যখন বয়সভিত্তিক খেলি, চাপের মুহূর্তে খেলেছি। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এই প্রথম এমন ছিল, ওই সময় সেসব অভিজ্ঞতা আমি বারবার মনে করেছি। এভাবেই ব্যাট করেছি।’…….

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *