ফেনীতে এক সপ্তাহে ১৮ জন করোনায় আক্রান্ত

প্রতিনিধি-

ফেনীতে এক সপ্তাহে নতুন করে আরো ১৮ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। নতুন ১৮ জনসহ জেলায় আক্রান্ত বেড়ে ২২১৮ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন সিভিল সার্জনসহ ৪৪ জন। সোমবার পর্যন্ত জেলায় ১৮৭৭ জন সুস্থ্য হয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. মীর মোবারক হোসাইন দিগন্ত।

 

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, গত সোমবার নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ মলিকুলার ল্যাবে ফেনী জেলার ২৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে, যার মধ্যে একটি দ্বিতীয় নমুনা।

এতে নতুন করে এক জন শনাক্ত হয়। আক্রান্ত ব্যক্তি দাগনভূঁঞার বাসিন্দা।

 

এর আগে রোববার নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ মলিকুলার ল্যাবে ফেনী জেলার ৫০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে নতুন করে ৮ জন শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে ফেনী সদরে ৪ জন, দাগনভূঞায় এক জন, ফুলগাজীতে এক জন ও ছাগলনাইয়ায় ২ জন রয়েছে।

 

গত শুক্রবার নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ মলিকুলার ল্যাবে ফেনী জেলার ৪১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে নতুন করে ৩ জন শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে ফেনী সদরে ২ জন ও দাগনভূঞায় এক জন রয়েছে।

 

গত বৃহস্পতিবার নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ মলিকুলার ল্যাবে ফেনী জেলার ৩২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে নতুন করে ৪ জন শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে ফুলগাজীতে ২ জন, ফেনী সদর ও দাগনভূঞায় এক জন করে ২ জন রয়েছে।

 

গত বুধবার নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ মলিকুলার ল্যাবে ফেনী জেলার ৩৪টি এবং ফেনী বক্ষব্যাধি ক্লিনিকে ৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে নতুন করে ২ জন শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে ফেনী সদরে এক জন ও ছাগলনাইয়ায় এক জন রয়েছে।

 

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, গত ১৬ এপ্রিল ফেনীতে প্রথম এক যুবকের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রামন শনাক্ত হয়। শনাক্তের ২৫৮ তম দিনে এসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২২১৮ জন। ফেনীর বক্ষব্যাধি হাসপাতালের জেনেক্সপার্ট ল্যাব, নোয়াখালী আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাব, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেজ (বিআইটিআইডি) এবং চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৩ হাজারের ৫২৫টি নমুনার ফলাফলে উক্ত সংখ্যা শনাক্ত করা হয়।

 

আক্রান্তদের মধ্যে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, গণমাধ্যমকর্মী, জনপ্রতিনিধি, সরকারী কর্মকর্তা, ব্যাংকার, প্রকৌশলী, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও শিশু রয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে উন্নত চিকিৎসার জন্য অর্ধশত রোগীকে অন্যত্র স্থানান্তর করা হয়েছে। বর্তমানে আক্রান্তরা হোম আইসোলেশনে ও জেনারেল হাসপাতালে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

 

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, জেলার সদর উপজেলায় ৯১৯ জন, দাগনভূঞা উপজেলায় ৪১৯ জন, সোনাগাজী উপজেলায় ২৮০ জন, ছাগলনাইয়া উপজেলায় ২৮২ জন, পরশুরাম উপজেলায় ১৫৩ জন, ফুলগাজী উপজেলায় ১৩৭ জন ও অন্য উপজেলা থেকে নমুনা দিয়ে ২৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮৭৭ জন। ফেনীতে শনাক্তকৃত মোট করোনা রোগীর প্রায় ৪০ শতাংশ রোগীই ফেনী সদরের বাসিন্দা।

 

ফেনীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জেলায় সিভিল সার্জনসহ ৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৩৭ জন পুরুষ ও ৭ জন নারী রয়েছে। মৃতদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৫ জন, সোনাগাজীতে ১১ জন, দাগনভূঞা উপজেলায় ৮ জন, ছাগলনাইয়ায় ৬ জন, পরশুরামে ৩ জন ও ফুলগাজীতে একজন রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *