দাগনভূঞায় ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ২৮ লাখ টাকা লুট, তিন ডাকাত গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিনিধি-

দাগনভূঞায় ইসলামি ব্যাংক থেকে উত্তোলিত ২৮ লাখ টাকা ডিবি (ভূয়া) পরিচয় দিয়ে ডাকাতির ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় দুই মাস পর শীর্ষ আন্তঃজেলার তিন ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। ডাকাতির ২৭ লাথ ৬১ হাজার টাকার মধ্যে মাত্র ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এমন তথ্য দেন পুলিশ সুপার খোন্দাকার নূরুন্নবী। এর আগে মঙ্গলবার রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে ডাকাতদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

 

পুলিশ জানায়, গত ২১ অক্টোবর ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকের সত্তাধিকারী মো. আবু জাফর শাহীন ইসলামী ব্যাংক দাগনভুইয়া শাখা থেকে নগদ ২৭ লাখ ৬১ হাজার পাঁচশত টাকা উত্তোলন করে সোনাগাজীর কুঠিরহাট যাচ্ছিলেন। তিনি দাগনভুইয়া মাতুভূইয়ার বেকের বাজার উত্তর আলীপুর সৌদিয়া মসজিদের সামনে পৌঁছলে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্যরা ডিবি (ভুয়া) পরিচয় দিয়ে জোর পূর্বক আবু জাফর শাহীনকে প্রাইভেট কারে জোর করে তুলে কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ থানাধীন দয়াপুর নামক স্থানে নিয়ে যায়। এসময় তার থেকে ২৭ লাখ ৬১ হাজার পাঁচশত টাকা কেড়ে নিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে ফেলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। ওই ঘটনায় ভূক্তভোগী শাহীন বাদি হয়ে দাগনভুইয়া থানার মামলা দায়ের করে।

 

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ডিবি) এ এন এম নুরুজ্জামান নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক খালেদ হোসেন এর একটি বিশেষ টিম ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। গত দুই মাস অভিযান চালিয়ে ডাকাতির ঘটনায় ব্যবহৃত প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো-গ-২৮-৬৪২২) জব্দ করে। ডাকাতির সাথে জড়িত বরগুনা জেলার তালতলী থানার পঞ্চকরালিয়া (পঁচা কোরালিয়া) হাওলাদার বাড়ীর ময়েজ উদ্দিন হাওলাদারের ছেলে মো. জাকির হোসেন (৩৮), বগুড়া জেলার সদর থানার ফাপর বগুড়া পৌরসভা জেলাদার পাড়া পুরান বগুড়া মো. ইব্রাহিম আকন্দের ছেলে মো. সবুজ মিয়া (৫০) ও পাবনা জেলার চাটমোহর থানার চৌরইকুল সরকার বাড়ীর মো. আবু জাফরের ছেলে মো. ইমরান নাজিরকে (৩৮) ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা সকলেই বর্তমানে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় বসবাস করতো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *