স্টার লাইনের বিরুদ্ধে অপ-প্রচার: ফেনীতে ভাইয়ের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

 
নিজস্ব প্রতিনিধি, ১১ নভেম্বর
 
ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলাউদ্দিন কে জড়িয়ে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে নুরুল আফসারের ভাই মনিরুল ইসলাম। আজ বুধবার(১১ নভেম্বর) বিকেলে ফেনী শহরের একটি হোটেলে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে মনিরুল ইসলাম জানান, আমার পিতার নাম আবদুর রশিদ রাজাপুর দাগনভূঞা। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার আপন মেজ ভাই নুরুল আফসার সহ আমরা তিন ভাই পাঁচ বোন। আমার বড় ভাই মরহুম সাংবাদিক শহিদুল্লাহ ১৯৯১ সালের ১ নভেম্বর ঢাকা থেকে আসার পথে কুমিল্লা বিশ্বরোড তার নিজ ব্যবহৃত গাড়িতে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে ১০ মাসের এক শিশু ও স্ত্রী রেখে যান। তার রেখে যাওয়া ছেলের নাম জোবায়ের মোঃ আকাশ আমি বাবার পৈত্তিক সূত্রে প্রাপ্ত হইয়া সম্পত্তি ভোগ দখল রত অবস্থায় ছিলাম এবং আছি।
 
বর্তমানে ওই জায়গার উপর শহীদ হার্ডওয়ার নামে একটা প্রতিষ্ঠান ১৯৯১ সাল থেকে দেখাশোনা করে আসছি। ব্যবসা মন্দার কারণে আমি দোকানটি ভাড়া দিয়েছি। ভাড়াটিয়ার নামে রহমান স্টোর নামে পরিচালিত ওই ব্যসা প্রতিষ্ঠান। আমার বাবা আমার নানা থেকে ১৯৬৪ সালের ৩ জানুয়ারি ক্রয় সূত্রে সম্পত্তি মালিক দখলদার হন। ১৯৬৬ সালে ওই সম্পত্তি থেকে ৭.৭৫ শতক জায়গা সরকার খাস করে নেন। বাকী ৩.২৫ শতাংশ আমার বাবার নামে খারিজ হয়। উক্ত সম্পত্তি বর্তমানে বিএস জরিপে আমাদের দুই ভাই ও বড় ভাইয়ের ছেলের নামে বি এস জরিপে ১.৬৮ শতাংশ করে রেকর্ড হয়। বাকি জায়গা এখনো বি এস রেকর্ড বিহীন অবস্থায় আছে। উল্লেখিত ১.৬৮ শতাংশ ভূমি আমি আমার বড় ভাইয়ের ছেলে হিস্যা হারে তিন ভাগের দুই ভাগ অর্থাৎ ১.১২ শতাংশ ভূমি স্টার লাইন গ্রুপের নিকট বায়না চুক্তিপত্র করি। চুক্তি অনুযায়ী ১.৬৮ আন্দরে ১.১২ শতাংশ ভূমি অর্থাৎ তিনভাগের দুইভাগ ভূমি আমি ও আমার ভাতিজা জোবায়ের মোহাম্মদ স্টারলাইন গ্রুপের নিকট বিক্রি করিয়া দিই। বিক্রয়ের সময় আমার পাঁচ বোন ও মামা দলিলের সাক্ষীও শনাক্ত হয়।
 
সুতরাং আমরা শতভাগ স্বচ্ছতার সহিত সম্পত্তির হিসাব অনুযায়ী স্টারলাইন গ্রুপের কাছে টাকার প্রয়োজনে বিক্রি করি। স্টারলাইন গ্রুপ আমাদের কাছ থেকে ১.১২পয়েন্ট জায়গা দখল বুঝিয়ে নেম।
অথচ আমার মেজো ভাই অন্যের দ্বারা প্ররোচিত হয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে স্টার লাইন গ্রুপের সুনাম ক্ষুন্ন করার উদ্দেশ্যে মেয়র হাজী আলাউদ্দিন এর বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করে যাচ্ছে ।স্টার লাইন আমাদের কোনো সম্পত্তি দখল করে নাই। আমি আপন সহোদর হিসেবে আমার ভাইয়ের এহেন কার্যকলাপের জন্য খুবই লজ্জিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *