সোনাগাজীতে পূর্বশত্রুতার জেরে শিশুর দেহ জ্বলসে দেয়ার অভিযোগ !

নিজস্ব প্রতিনিধি>>সোনাগাজীতে পূর্বশত্রুতার জেরে শিশুর দেহ আগুন দিয়ে জ্বলসে দিয়েছে প্রতিপক্ষ এমন অভিযোগ করেছে অসহায় পিতা । ফেনী সদর হাসপাতালের বেডে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে গরীব রিক্সা চালকের মেয়ে শিশু ফারিয়া সুলতানা বীথি (৭)।

দগ্ধ ফারিয়া সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের চর সোনাপুর গ্রামের রিকশাচালক আজিজুল হকের মেয়ে।

আগুনে দগ্ধ বিথী ২৫০ শয্যা ফেনী জেলা সদর হাসপাতালের পুরাতন ভবনের দোতলায় নারী ও শিশু ওয়ার্ডের ১১ নং বেডে ভর্তি রয়েছে । রাতের মধ্যে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্রগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হতে পারে বলে ভুক্তভোগী সূত্রে জানা গেছে ।

শুক্রবার বিকেলে ফেনী সদর হাসপাতালে পোড়া ক্ষত নিয়ে ভর্তি করা হয় ফারিয়াকে ।

বিথীর মামা  আব্দুল হাই জানান,  সোনাগাজীর চরসোনাপুর গ্রামে আজিজ একটি পরিত্যক্ত জমিতে বসবাস করতেন। এ নিয়ে শুক্কুরের সাথে বিরোধ ছিল প্রতিপক্ষ পাশের বাড়ির আবদুল শক্কুরের সাথে। এর জের ধরে ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে।

তবে বীথির বাবার অভিযোগ শুক্রবার দুপুরে ফারিয়া একই এলাকার আব্দুস শুক্কুরের মেয়ে নিহার সাথে পাশের একটি মাঠে চড়–ইভাতি খেলছিল। এসময় শুক্কুরের মেয়ের দেয়া কেরোসিন তৈলের বাতির আগুনে বিথীর দেহের পেছনের অংশ পুড়িয়ে দেয় । তবে এ   থানায় কোনো মামলা দেয়া হয়নি বলে তিনি জানান ।

ফেনী জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. অসীম কুমার সাহা জানান, রোগিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেয়া হয়েছে ।

সোনাগাজী থানার তদন্ত ইনচার্জ  (ওসি )  হারুনুর রশিদ জানান, এলাকায়  চড়ইভাতি খেলতে গিয়ে অসাবধানতাবশত এ ঘটনা ঘটে। তবে এ ব্যাপারে বিথীর পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *