সত্য ও ন্যায়ের জয় হয়েছে : নিজাম হাজারী এমপি

নিজস্ব প্রতিনিধি>> সত্যের জয় এবং মিথ্যার পরাজয় হয়েছে। আদালতের রায়কে ফেনীবাসী শ্রদ্ধার সহিত স্বাগত জানিয়েছেন। অশুভ তৎপরতা ও সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে যুগে যুগে সত্য ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে যা ইতিহাসই তার জ্বলন্ত স্বাক্ষী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি পদে থাকার বৈধতা নিয়ে রায়ের পর সাংবাদিকদের মাঝে এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি রায়ের প্রতি সম্মান দেখিয়ে বলেন, আদালত যে রায় দিয়েছেন আমি সেই রায় মাথা পেতে নিয়েছি। সন্ত্রাসকে প্রতিহত করে শান্তি ও উন্নয়নের ফেনী গড়তে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।
রায়ের পরপর নিজাম হাজারী এমপি ফেনী গার্লস ক্যাডেট কলেজ মাঠে হেলিকপ্টার যোগে অবতরণ করেন। এসময় বিপুল সংখ্যক দলীয় নেতাকর্মীরা ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। পরে তিনি শহরের মাস্টার পাড়াস্থ পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর বাবার কবর এবং তাকিয়া রোডস্থ পাগলা মিয়ার মাজারে জেয়ারত করেছেন।

এ সময় অন্যান্যের মাঝে ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বিকম, পরশুরাম উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার, ছাগলনাইয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল, ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলাউদ্দিন, সোনাগাজী পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন, ছাগলনাইয়া পৌর মেয়র মো. মোস্তফা, ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র আশ্রাফুল আলম গিটার, নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল, সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নুরুল আফছার আপন, জেলা যুবলীগ নেতা চৌধুরী আহমেদ রিয়াজ আজিজ, সোনাগাজী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক হিরণ, আমিরাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান জহিরুল আলম জহির, আনন্দপুর ইউপি চেয়ারম্যান হারুন মজুমদার, মোটবী ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ এলএলবি, পৌর কাউন্সিলর বাহার উদ্দিন বাহার, লুৎফুর রহমান খোকন হাজারী, মো. কহিনুর আলম, পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক গাজী খালেদ ইমাম জুয়েল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাহ উদ্দিন ফিরোজ, সাধারণ সম্পাদক জাবেদ হায়দার জর্জ, সিনিয়র সহ-সভাপতি জিয়া উদ্দিন বাবলু, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফখরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শেখ আবদুর শুক্কুর মানিকসহ জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

‘সাজা কম খেটেই বেরিয়ে যান সাংসদ’ শিরোনামে ২০১৪ সালের ১০ মে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন ছাপা হয়। এই প্রতিবেদন যুক্ত করে নিজাম হাজারীর সাংসদ পদে থাকার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করেন ফেনী জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাখাওয়াত হোসেন ভূঁইয়া।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. আবু জাফর সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের একক বেঞ্চে ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর পদে থাকার বৈধতা নিয়ে করা রিট খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের রায়ের মধ্য দিয়ে নিজাম হাজারীর পদে থাকা বৈধতা পেল বলে আইনজীবীরা জানিয়েছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *