রাজাপুরে গ্রাহকের টাকা আত্মসাতের মামলায় মাল্টিপারপাস চেয়ারম্যান আটক

প্রতিনিধি, ফেনী
একজন গ্রাহকের আট লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় ফেনীর বন্ধ হয়ে যাওয়া একটি মাল্টিপারপাস সোসাইটির চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি দাগনভূঁঞা উপজেলা রাজাপুর ইউনিয়নের লতিফপুর আদর্শ সোসাইটির চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ভূঁঞা। গতকাল রোববার তাঁকে ফেনীর বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বাদীর অভিযোগ ও আদালত সুত্র জানায়, লতিফপুর আদর্শ সোসাইটিতে চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ভূঁঞা স্থানীয় আবুল কালাম ভূঁঞা নামে এক ব্যক্তি থেকে ২০১৩ সালের ২৬ জুন আট লাখ টাকা ডিপোজিট হিসেবে গ্রহন করেন প্রতি মাসে ২০ হাজার টাকা মুনাফা দেওয়ার শর্তে দুইট ১৫০ টাকার নন জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পে লিখিত অঙ্গিকার করেন।

কিন্তু এক বছরের মাথায় ২০১৪ সালে ওই সোসাইটির কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে কর্মকর্তাগণ পালিয়ে যায়। অনেক দেন দরবার করেও আমানতের টাকা উদ্ধার করতে না পেরে প্রথমে আইনগত নোটিশ প্রদান করা হয়।

তারপর ২০১৬ সালের ৫ অক্টোবর ফেনীর আদালতে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন। আদালত সেটিকে এফআই আর হিসেবে গ্রহনের জন্য ফেনী সদর মডেল থানায় পাঠায়। মামলাটি তদন্ত শেষে ঘটনার সত্যতা পেয়ে ২০১৭ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি ফেনী থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রমিজ উদ্দিন আদালতে সোসাইটির চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ভূঁঞা ও ম্যনেজার মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা দেন। আদালত থেকে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি হওয়ার পর তিনি পলাতক ছিলেন।
দাগনভূঁঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ছালেহ আহম্মদ পাঠান লতিফপুর আদর্শ সোসাইটির চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ভূঁঞাকে গ্রেপ্তার ও আদালতে মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *