যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্মম নির্যাতন > মামলা করায় প্রাণনাশের হুমকি

সোনাগাজী প্রতিনিধি
সোনাগাজীতে যৌতুকের জন্য তিন সন্তানের জননী জোছনাকে (২৭) নির্মম ভাবে পিটিয়ে আহত করেছে পাষন্ড স্বামী । সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের পূর্ব চর সাহাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে । সুবিচারের আশায় মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে বিচার প্রার্থী জোছনা ।
এলাকাবাসী ও থানায় অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০০৫ সালে সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের পূর্ব চর সাহাপুর (মুহুরী প্রজেক্ট এলাকা) গ্রামের মৃত ছাদু বেপারীর ছেলে আবদুল লফিতের সাথে একই ইউনিয়নের চর খোয়াজ গ্রামের বৃদ্ধ কৃষক আলী আহমদের কন্যা জোছনারা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় শ্বশুর পরে দাবীর প্রেেিত ৫০ হাজার টাকা, ৫ ভরি স্বর্ণ ও ১টি সাইকেল দেয়া হয়।

বিয়ের কয়েক মাস পর থেকে জোছানারা পরিবার থেকে বিভিন্ন অজুহাতে যৌতুক দাবী করে তার স্বামী পরিবার জোছনাকে বেশ কয়েকবার মারধর করে। এ নিয়ে এলাকায় সালীশি বৈঠকও হয়, সেখানে অপরাধী স্বামী লতিফকে সাবধান করে দেয়া হয় । কিন্তু মা মরা মেয়ের সুখের কথা ভেবে তার পরিবার বিভিন্ন সময় নগদ টাকা ও উপঢোকন সাধ্যমত দিয়ে যায়।
স¤প্রতি স্বামী-শাশুড়ী ও ননদ মিলে ঘর মেরামতের কথা বলে জোছনারার কাছে ৫০ হাজার টাকা দাবী করে। জোছনারার ভাই বোনের সুখের কথা ভেবে নগদ ৫ হাজার টাকা দেয় । পরে নতুন ঘর তৈরী উপলক্ষে বিভিন্ন আসবাবপত্র ও ছেলে মেয়ের জন্য জামা কাপড় দিয়ে আসে।

গত ৩১ মার্চ জোছনারাকে পুনরায় ৫০ হাজার টাকার জন্য চাপ দেয় শ্বশুর পরিবার। অসহায় বাবার পে আর টাকা দেওয়া সম্ভব নয় বলে জোছনা জানায়। এতে প্তি হয়ে স্বামী লতিফ, শাশুড়ী মাবিয়া খাতুন, ননদ বিবি কুলসুমা এলোপাতাড়ি কিলঘুষি ও লাথি মেরে মারাত্মক আহত করে।
এক পর্যায়ে স্বামী লতিফ গৃহবধূ জোছনার মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করলে সে রক্তাক্ত ও জখম হয়। ঘটনার পর আহত জোছনাকে বিনা চিকিৎসায় স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন ২ দিন আটকে রাখে। পরে জোছনার আত্মীয়-স্বজন তাকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করায়।
স্থানীয় চেয়ারম্যান সামছুল আরেফিনের পরামর্শে গত ২০ এপ্রিল শুক্রবার সোনাগাজী মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে নির্যাতিত গৃহবধু জোছনারা আক্তার ।
মামলার জের ধরে পাষন্ড স্বামী স্ত্রীকে প্রাণ নাশের হুমকী দিয়ে আসছে ।

স্থানীয় পঞ্চায়েত ও ইউপি পরিষদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে কোন সুরাহা করতে না গৃহবধূ জোছনা মামলা দায়ের করতে বাধ্য হন ।
বর্তমানে জোছনার ২ কণ্যা ও ১ পুত্র সন্তান রয়েছে। বড় মেয়ে স্থানীয় মাদ্রাসায় ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ে ।
অভিযোগ রয়েছে এলাকার কথিত পঞ্চায়েত কমিটির সদস্য সামছু ও রাজ্জাকসহ শ্বশুর পরে লোকজন জোছনার সংসার ভাঙ্গার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *