ভাষা শহিদ সালামের গ্রামের একমাত্র সড়কটির বেহাল দশা

নিজস্ব প্রতিনিধি>> ভাষা শহিদ সালামের গ্রামের একমাত্র সড়কটির বেহাল দশা । ভাঙ্গন প্রতিরোধে এখানে দেয়া হয়েছে বড় গাড়ি যাতায়তে বাধারোধক খুঁটি । ফলে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে স্বাভাবিক য়াতায়ত প্রক্রিয়া । প্রবেশ করতে পারছেনা তিন ও চার চাকা চালিত যানবাহন।

ভাষা শহিদ সালামের ছোট ভাই আবদুল করিম ফেনীর তালাশকে জানালেন, সালাম নগরের প্রায় ৭ হাজার অধিবাসীসহ আশপাশের গ্রামের প্রায় অর্ধলক্ষ মানুষ এ ভাঙ্গাচোরা রাস্তা দিয়েই যাতায়াত করে মনে দুঃখ  নিয়ে । রাস্তাটি বার বার মেরামত করা হলেও বর্ষা  মৌসুমে ফেনী ছোট নদীর স্রোতের গতিতে প্রবল ঢেউয়ে সড়কটি ভেঙ্গে যায় । এটি প্রতিরোধে প্রয়োজন নদী গতি পরিবর্তন ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা ।

সালামনগর যাওয়ার রাস্তাটি ফেনী নদীর ভাঙনে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কিন্তু তা সংস্কারে কোনো উদ্যোগ নেই সংশ্লিষ্ট বিভাগের। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ কিছুটা সংস্কার করলেও নদীর ভাঙনের হুমকির মুখে রাস্তাটি। এভাবে উপেক্ষিত রয়ে গেছে সালাম পরিবারের অনেক দাবি।

এ ছাড়া বিভিন্ন সমস্যায় আটকে আছে ফেনীর ভাষাশহীদ আবদুস সালাম স্মৃতি জাদুঘর ও গ্রন্থাগারটি। অভিযোগ রয়েছে জাদুঘর ও গ্রন্থাগার বন্ধ থাকে বেশিরভাগ সময়। ফেব্রুয়ারি মাস ছাড়া সালামনগরের খবরই রাখে না কেউ।

ফেনী শহর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার পশ্চিমে দাগনভুঞা উপজেলার মাতুভূঞার সালামনগরে ভাষাশহীদ সালামের বাড়ি। শহীদ সালামের একটি ছবি ছাড়া এখানে নেই কোনো স্মৃতিচিহ্ন। রয়েছে একটি জাদুঘর ও গ্রন্থাগার। কিন্তু প্রতিষ্ঠার আট বছরেও তা পূর্ণতা পায়নি। দেখভালের জন্য একজন কর্মচারী থাকলেও ভবনটি খোলা হয় না সময়মতো। দর্শনার্থীরা তাই হতাশ হয়ে ফিরে যান বলে অভিযোগ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *