বৃষ্টির পরই কমল গরুর দাম

রামপুরার আকাশ সাহেব গরু কিনতে আজ বৃহস্পতিবার সকাল আটটায় আসেন আফতাবনগর হাটে। এসে দেখেন, গরুর বাজার বেশ চড়া। পুরো হাট ঘুরে দেখতে থাকেন তিনি। এর মধ্যেই ১০টার দিকে শুরু হয় বৃষ্টি।

আকাশ সাহেব দেখলেন, বৃষ্টি শুরু হওয়ার পর বাজারে গরুর দাম বেশ কমে গেল। দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ ৫৪ হাজার টাকায় একটি দেশি গরু কিনলেন তিনি। আকাশ বললেন, সকালে বাজার অনেক চড়া ছিল। এখন দাম কিছুটা কমেছে। গরু কিনে তাই খুব খুশি।

সরেজমিনে আফতাবনগর গরুর হাটে দেখা গেল, প্রচুর গরু বেচাকেনা হচ্ছে। রাস্তার দুপাশ দিয়ে গরু কিনে নিয়ে যাচ্ছেন ক্রেতারা, অধিকাংশ গরুই ছোট আকারের দেশি গরু।

বিক্রেতারা জানালেন, এবারে দেশি গরুর বেচাকেনা অনেক বেশি। ৪০ হাজার থেকে ৮০ হাজার টাকার মধ্যে দেশি জাতের ছোট গরু বিক্রি বেশি।

আফতাবনগর হাটের একজন কর্মী মো. সাগর জানান, বেচাকেনা অনেক বেড়েছে। ক্রেতারা আজ আসছেন। দামও বেশ নাগালের মধ্যে। তবে দেশি ছোট জাতের গরু সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে।

সাগর আরও জানান, কাল শুক্রবার শেষ দিন। বাজারে পর্যাপ্ত গরু আছে, সময় যত গড়াবে, বেচাকেনা তত বাড়বে।

গরু বিক্রেতা আবদুর রহিম জানান, বৃষ্টির কারণে দাম একটু কমে গিয়েছে। তবে বৃষ্টি কমে গেলে বাজার অনেক চড়া হবে বলে আশা করছেন তিনি।

হাট ঘুরে দেখা গেল, সারি বেঁধে হাটে আসছেন ক্রেতারা। ক্রেতা-বিক্রেতার দর-কষাকষিতে মুখর আফতাবনগর হাট। বাজার পুরোপুরি জমে উঠেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *