বিপুল পরিমাণ গাঁজা উদ্ধার করলো র‌্যাব-৭

র‌্যাব প্রেস বিজ্ঞপ্তি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের জোরারগঞ্জ থানাধীন বারইয়ারহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২১ কেজি গাঁজা এবং ১ টি প্রাইভেটকারসহ ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭। সোমবার (৪ মার্চ) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মহাসড়কের বারইয়ারহাট এলাকায় আরমান টিম্বার এন্ড স্মৃতি ফার্নিচার মার্টের সামনে একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশির সময় এগুলো আটক করা হয়।
র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নুরুজ্জামান জানান, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী কুমিল্লা হতে একটি প্রাইভেটকারযোগে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য নিয়ে চট্টগ্রামের দিকে আসছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে র‌্যাব-৭ অভিযান পরিচালনা করে। এসময় র‌্যাব-৭ এর একটি দল বারইয়ারহাট এলাকায় আরমান টিম্বার এন্ড স্মৃতি ফার্নিচার মার্টের সামনে চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি শুরু করে। কুমিল্লা হতে চট্টগ্রামগামী একটি প্রাইভেটকারের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা প্রাইভেটকারটি থামানোর সংকেত দিলে মাদক ব্যবসায়ীরা প্রাইভেটকারটি না থামিয়ে দ্রæত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরবর্তীতে র‌্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে প্রাইভেটকারটি (চট্ট-মেট্টো গ ১২-০০৪৪) আটক করে। প্রাইভেটকারে থাকা চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানার ফরহাদবাদ গ্রামের ওবায়দুল হক লেদুর পুত্র এনামুল হক (৩১), মৃত আমির হোসেনের ছেলে হেলাল উদ্দিন (২৭) আটক করে। প্রাইভেটকারটি তল্লাশী করে প্রাইভেটকারের ভিতরে অভিনব কায়দায় লুকানো অবস্থায় ২১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।
তিনি আরো বলেন, আটককৃতরা দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন সীমান্তবর্তী এলাকা হতে মাদকদ্রব্য ক্রয় করে পরবর্তীতে উক্ত মাদকদ্রব্য দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রয় করে আসছে। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য ২ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *