ফেনী পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলীকে মারধর, ঠিকাদার গ্রেপ্তার

বিশেষ প্রতিনিধি :

কাজের মান খারাপ বলায় ফেনী পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলীকে শারিরীকভাবে লাঞ্চিত করেছে একজন ঠিকাদার। এ ঘটনায় মামলা হলে পুলিশ ওই ঠিকাদার ফেনী পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ফখরুল ইসলাম হাজারীকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

পুলিশ ও বাদীর অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে ফেনী পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আজিজুল হক পৌরসভার অধীন শহরের পাগলামিয়া সড়কে নির্মানাধীন ড্রেন ও কালভার্টের কাজ পরিদর্শনে যায়। এ সময় কাজের মান খারাপ দেখে নির্বাহী প্রকৌশলী অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং কাজের গুণগত মান ঠিক রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে নির্দেশ প্রদান করেন। কাজের মান খারাপ বলাতেই সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ফখরুল ইসলাম হাজারী ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এবং নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে তর্কবিতর্ক শুরু করেন। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের এক পর্যায়ে ওই ঠিকাদার ক্ষিপ্ত হয়ে নির্বাহী প্রকৌশলীকে শারিরীক ভাবে লাঞ্চিত করেন।

নির্বাহী প্রকৌশলী বিষয়টি  ফেনী পৌরসভার মেয়রসহ পৌর পরিষদ এবং ফেনী-২ (সদর) আসনের সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারীকে অবহিত করেন।

দুপুরে তিনি এ ঘটনায় বাদি হয়ে ফেনী সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পাওয়ার পরই ফেনী থানা পুলিশ অভিযুক্ত ঠিকাদার ফখরুল ইসলাম হাজারীকে গ্রেপ্তার করে।

ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলা উদ্দিন জানান, ওই কাজের গুণগত মান খারাপ হওয়ায় ইতিপূর্বে আরও ২-৩ বার ওই ঠিকাদারকে সতর্ক করা হয়েছিল এবং কাজের গুণগত মান ঠিক রাখতে বলা হয়েছিল। তারপরও কাজের গুণগত মান ঠিক করা হয়নি। উল্টো নির্বাহী প্রকৌশলীকে মারধর করা হয়েছে।

ফেনী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদ খান চৌধুরী প্রকৌশলী লাঞ্চিতের ঘটনায় একজন ঠিকাদারকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, ওই ঠিকাদারকে ফেনীর বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *