ফেনীর দাউদপুলে ব্যবসায়ীর উপর ভাড়াটে সন্ত্রাসী কালা মামুনের হামলা: ৩ ঘন্টা অবরুদ্ধের পর উদ্ধার

ফেনী প্রতিনিধি, ৫ অক্টোবর ২০১৯
ফেনীর দাউদপুলে তুচ্ছ ঘটনার জেরে নির্মাণ ব্যবসায়ী উপর হামলা ৩ ঘন্টা অবরুদ্ধ করে ১৫ লাখ টাকার ফাইলিং মেশিন আটক করে রাখে স্থানীয় ভ‚মি মালিক রফিক ও তার ভাড়াটে সন্ত্রাসী সাঈদ ইসলাম মামুন ওরপে কালা মামুন। খবর পেয়ে শনিবার(৫ অক্টোবর) বিকেলে ৩ ঘন্টা পর ফেনী মডেল থানা পুলিশ তাকে আহতবস্থা উদ্ধার করে। এ ঘটনায় সন্ত্রাসী রফিকুল ইসলাম ও তার ভাড়াটে সন্ত্রাসী কালা মামুনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।


মামলার বিবরণ ও পুলিশ জানান, ফেনী শহরের মিজান রোডস্থ এস.টি ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপের পরিচালক সাইদুল ইসলাম ও শেখ জিয়া উদ্দিন তুহিন একটি বহুতল ভবন তৈরীর জন্য শহরের দাউদপুল এলাকার রফিকুল ইসলামের সাথে চুক্তি করেন।

সে অনুসারে গত ৩ অক্টোবর থেকে ফাইলিংয়ের কাজ শুরু হয়। কাজ চলাকালীণ সময় তুচ্ছ ঘটনার অজুহাতে ভুমি মালিক রফিক শ্রমিকদের বেদম মারধর করে কাজ বন্ধ করে দেয়। বিষয়টি সুরাহা করতে এস.টি ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপের পরিচালক সাইদুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গেলে তাকে লাঞ্চিত করে অবরুদ্ধ করে রাখে ভুমি মালিক রফিক ও ভাড়াটে সন্ত্রাসী মামুন। খবর পেয়ে এস.টি ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপের অপর পরিচালক তাকে উদ্ধার করেন। কিন্তু ফাইলিং সামগ্রী আটকে রেখে কাজ বন্ধ করে নির্মাণ শ্রমিকদের তাড়িয়ে দেয় সন্ত্রাসী রফিক ও কালা মামুন গং।


এ ঘটনার সুরাহা করতে ও আটককৃত ফাইলিং যন্ত্রাংশ উদ্ধার করতে এস.টি ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপের পরিচালক সাইদুল ইসলাম ও শেখ জিয়া উদ্দিন তুহিন ফেনীর প্যানেল মেয়র আশরাফুল ইসলাম গিটারের দারস্থ হন। কিন্তু তিনি অসুস্থ থাকায় বিষয়টি সুরাহার দায়িত্ব দেন মেয়র আশরাফুল ইসলাম গিটারের ছোট ভাই আবুল কালাম মিনারকে।


৫ অক্টোবর শনিবার দুপুরে এস.টি ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপের পরিচালক শেখ জিয়া উদ্দিন তুহিন ফেনীর প্যানেল মেয়র আশরাফুল ইসলাম গিটারের ছোট ভাই আবুল কালাম মিনারকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গেলে পূর্ব থেকে ওঁতপেতে থাকা সন্ত্রাসী কালা মামুন তার শতাধিক সাঙ্গ-পাঙ্গ নিয়ে শেখ জিয়া উদ্দিন তুহিনকে লোহার রড দিয়ে বেদম প্রহার করে জিম্মি করে শ্রমিকদের তাড়িয়ে দেয়। খবর পেয়ে ৩ ঘন্টা পর ফেনী মডেল থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় কালা মামুন পালিয়ে যায়।
ফেনী মডেল থানা পুলিশের ইনচার্জ(ওসি) মো আলমগীর হোসেন জানান, বিষয়টি নিয়ে মামলা দেয়ার পর সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *