ফেনীতে স্কুল ছাত্রী অপহরনের ৭দিন পর উদ্ধার

ডেক্স রিপোর্টা: ফেনী শহরের মাষ্টারপাড়া থেকে স্কুলছাত্রী (১৫) অপহরনের ৭দিন পর সোনাগাজীর সোনাপুর এলাকার একটি বাড়ি থেকে গতকাল শনিবার ভোরে তাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় ছাত্রীটি অপহরনের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে স্কুলছাত্রীর মা বাদি হয়ে বখাটে পারভেজ রাফা (২৫), তার পিতা মো.ইউসুফসহ (৫০) অজ্ঞাতনামা দুই-তিনজনকে আসামী করে ফেনী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে অপহরন মামলা দায়ের করেছেন।

 

সূত্র জানায়, অপহরণের শিকার স্কুলছাত্রী ফেনী শহরের একটি বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। গত কয়েক মাস আগে মুঠোফোনে অজ্ঞাত নাম্বারে পারভেজ রাফার সঙ্গে পরিচয় হয়। সে থেকে দু’জনের মাঝে মধ্যে কথা হতো। একপর্যায়ে পারভেজ রাফা ওই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এতে ছাত্রী রাজি না হওয়ায় তাকে তুলে নিয়ে বিয়ে করার হুমকি দেয়। বিষয় ছাত্রী বাড়িতে গিয়ে তার মা-বাবাকে জানায়। তারা বিষয়টি সর্ম্পকে বখাটের অভিভাবকদের অবহিত করেন। এতে সে শান্ত হয়ে যায়। কিন্তু গত ৪আগষ্ট শনিবার সকালে ওই ছাত্রীটি প্রাইভেটে যাওয়ার জন্য শহরের মাষ্টারপাড়ার বাসা থেকে বের হয়ে ফেনী সরকারী কলেজের সামনে আসে। এসময় এক সহযোগীসহ পারভেজ রাফা একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা নিয়ে এসে ছাত্রীকে পেছন দিক থেকে কাপড় দিয়ে মুখ চেপে ধরে জোর করে গাড়িতে তুলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যান।

অপহরনের ৭ দিন পর গত গতকাল শনিবার ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফেনী সদর ও সোনাগাজী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের চর সোনাপুর এলাকার বখাটের পারভেজ রাফার নানার বাড়ি থেকে ছাত্রীটিকে উদ্ধার করে। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বখাটে পারভেজসহ বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মো. মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উদ্ধারের পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পরবর্তী আইনী প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য ওই ছাত্রীকে ফেনী সদর মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ফেনী মডেল থানার ওসি মো: রাশেদ খান চৌধুরী বলেন, বখাটে পারভেজ রাফার মায়ের দেওয়া তথ্যমতে অপহৃত স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। অপহরনের নায়ক পারভেজ রাফাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *