ফেনীতে শীত আর ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত জীব বৈচিত্র

১৩ জানুয়ারী ২০২০

 সৌরভ পাটোয়ারী,

শীতে কাবু  হয়ে পড়েছে সারাদেশের  মানুষ ও জীব বৈচিত্র। বয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ। দীর্ঘ সময় ধরে  সূর্যের দেখা মিলছে না । তীব্র শীত ও ঘন কুয়াশায় জনজীবন অনেকটাই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।ভোরে ও সন্ধ্যায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির মতো  কুয়াশা পড়ছে। ঘন কুয়াশায় ব্যাহত  যান চলাচল হচ্ছে। দিনে গাড়ির হেডলাইট জ্বালিয়েও বেশি দূরের জিনিস দেখা যাচ্ছে না।

ফেনী জেলার সব কয়েকটি উপজেলায় বেশ দাপট দেখাচ্ছে শীত। এ জেলায় গত ২ দিনে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ থেকে ৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠা-নামা করছে।

রোববার(১২ জানুয়ারী) জেলার বেশিরভাগ স্থানে উত্তরের হিমেল হাওয়া বইছে। এতে শীতের প্রকোপ সোমবার আরও বাড়ছে। শুরু হয়েছে আরেক দফা শৈত্যপ্রবাহ। পাশাপাশি, জেলায়  ঘন কুয়াশা পড়েছে।

ফেনীর আবহাওয়া পর্যবেক্ষকরা বলছেন, শৈত্যপ্রবাহ এবং তাপমাত্রা হ্রাসের কারণে শীত লাগাটাই স্বাভাবিক। কিন্তু শীতের অনুভূতির সঙ্গে আরও কিছু বিষয় জড়িত। বৃষ্টি হলে আকাশ  মেঘমুক্ত থাকে। এতে ঊর্ধ্বাকাশের শীতল বায়ু পৃথিবীর কাছাকাছি চলে আসে।রাতের ব্যপ্তিকাল বেশি। সূর্য ঠিকমতো ধরণী উষ্ণ করতে না পারায় সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার ব্যবধান কমে গেছে। সাধারণত, এ দুয়ের ব্যবধান ১২ ডিগ্রির কম হয়ে গেলে হাড় কাঁপানো শীতের অনুভূতি হয়ে থাকে।

তারা জানান,  আর ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাকে বলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। এ হিসাবে শুধু ফেনীতে বিভাগে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে বলে জানান আবহাওয়াবিদরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *