ফেনীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় একুশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

ফেনী জেলা প্রতিনিধি, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
ফেনীতে যথাযোগ্য মর্যাদায়, গভীর শ্রদ্ধায় ও শোকে পালিত হল মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ‘একুশে ফেব্রুয়ারী’। বুকে কালো ব্যাজ আর মুখে ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারী, আমি কি ভুলিতে পারি’- গান গেয়ে খালি পায়ে একে একে জাতি ধর্ম বর্ণ, নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে বুধবার ফেনীর ট্রাংক রোডস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। ফুলে ফুলে ঢেকে যায় পুরো শহীদ মিনার। ব্যাক্তি, গোষ্ঠী, দলমত সব ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সালাম, জব্বার, বরকত, শফিউরসহ সকল ভাষা শহীদদের গভীর শ্রদ্ধায় ও শোকে দিনভর স্মরণ করে ফেনীর আপামর জনতা।

একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শুরু হয় শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন। এরপর জেলা প্রশাসক মনোজ কুমার রায়’র নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে জেলা প্রশাসনের প হতে শ্রদ্ধা জানানো হয় । পুলিশ সুপার এস এম জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে সুজ্জিত পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ পুষ্পস্তবক অর্পন করে স্যালুট জানান শহীদদের স্মৃতিতে।

শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করে আরো শ্রদ্ধা জানায়, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, ফেনী প্রেস কাব, রিপোর্টার্স ইউনিটি, বাংলাদেশ ফটো জার্ণালিস্ট এসোসিয়েশন, ফেনী জেলা, ফেনী পৌরসভা, জেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, জেলা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, সৌহার্দ্য ফেনীর সরকারী কলেজ ১৯৯৫ ব্যাচ,  জাতীয় পার্টি, জাসাস, জাসদ, ন্যাপসহ দলীয় অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। আরো শ্রদ্ধা জানায় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, ফেনী উন্নয়ন ফোরাম. ফেনী লিও কাব, জেলা শিল্পকলা একাডেমী, বিএমএ, জেলা কারাগারসহ বিভিন্ন অরাজনৈতিক, সামাজিক, পেশাজীবী, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। ফেনীর সবকয়টি শিা প্রতিষ্ঠানের প থেকেও পুস্পস্তবক অর্পন করা হয়। ফেনী ইউনিভার্সিটি, ফেনী সরকারি কলেজ, ফেনী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, ফেনীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ফেনী শিশু নিকেতনসহ সবকয়টি শিা প্রতিষ্ঠান প্রভাতফেরী সহকারে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শহীদ মিনারে। মানুষের পদচারনায় ও শ্রদ্ধায় ফুলে ফুলে ভরে উঠে শহীদ মিনার।

এদিন একুশের তাৎপর্য ও মহান শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভা, স্মরণ সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংগঠন। আয়োজন করা হয় অমর একুশে উপলে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার। রচনা, চিত্রাংকন, আবৃত্তি, বক্তৃতাসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে বিপুল শিার্থী। এছাড়া উপজেলায় একই কর্মসূচী পালিত হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *