ফেনীতে ট্রেন-কাভার্ডভ্যান সংঘর্ষ নিহত ৪

নিজস্ব প্রতিনিধি>>

ফেনীতে ট্রেন ও কাভার্ডভ্যান সংঘর্ষে কাভার্ডচালকসহ অজ্ঞাত পরিচয় চারজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ২ জন। গতকাল (বুধবার) ভোর সাড়ে চারটায় চট্টগ্রামগামী ডাউন ট্রেন তুর্ণানিশীথা শহরের অদূরে বারাইপুর লেভেল ক্রসিং গেইটের কাছে চলে আসে। এ গেইট খোলা দেখে মেসার্স মাকসুদা সার্ভিস (পিরোজপুর-ট ১১-০২১৭) কাভার্ডভ্যানের চালক ক্রসিং পার হতে গিয়ে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে গেইটম্যান পলাতক রয়েছে।

খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ারসার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। তবে, পুলিশ আহত ও নিহতদের নাম পরিচয় জানাতে পারেনি। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফেনী সদর হাসপাতালে নিহতদের ময়নাতদন্তের প্রস্তুতি চলছিল। ঢাকা থেকে ফেনী সদর হাসপাতালের জন্য ঔষধ-সরঞ্জাম নিয়ে আসা তিনটি কাভার্ডভ্যানের প্রথম ভ্যানটি ক্রসিং পার হলেও দ্বিতীয় ভ্যানটি দুর্ঘটনার শিকার হয়। কাভার্ডভ্যানটি ঢাকার মেসার্স সোহেল ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির মাধ্যমে আসছিল।

পুলিশ, হাসপাতাল ও অপর কাভার্ডভ্যান চালক সূত্রে জানা যায়, দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে ৩ জন মারা গেছে। এ সময় আহত মুমূর্ষূ অপর ৩ জনকে ফেনী সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ২ জনকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করে। পথিমধ্যে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্টের কাছে এলে নরসিংদীর হানিফ মারা যাওয়ায় তাকে ফেনীতে ফেরত আনা হয়। ভ্যানের পণ্য বুঝিয়ে দিতে আসা (স্কট) রংপুরের রমজান পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অপর আহত রংপুরের আরিফুেলর (আনিছ) পায়ে অস্ত্রপচার শেষে ফেনী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নিহত ও আহতরা সবাই কাভার্ডভ্যানের আরোহী ছিল।

রেলওয়ে জিআরপি পুলিশের ইনচার্জ আরব আলী জানান, চট্টগ্রামগামী তূর্ণা নিশীথা ট্রেনটি ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে ফেনী রেলওয়ে স্টেশনের অদূরে বারাহিপুর রেলক্রসিংয়ে ওই কাভার্ডভ্যানের পেছনের দিকে ধাক্কা দেয়। এতে কাভার্ডভ্যানটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলে ৩ জন মারা গেছে। আহতদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় হাসপাতালে নেয়। পরে সেখানে আরো একজন মারা যায়। মৃত ও আহদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

ফেনী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক মো. আবদুল আলীম জানান, ঘটনার সময় রেলক্রসিংয়ের গেইটম্যান ছিল কি না জানা যায়নি। তবে ঘটনার পর থেকে সে পলাতক রয়েছে। দুর্ঘটনার পর কিছুক্ষণ ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও পরে তা স্বাভাবিক হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *