ফেনীতে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে পালিয়ে যুবক

নিজস্ব প্রতিনিধি : জ্বর, সর্দি-কাশিসহ করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ফেনী থেকে পালিয়ে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন এক যুবক। তিনি প্রবাসফেরতদের তার গাড়িতে বহন করেছেন কয়েকদিন। পরে ওই ব্যক্তির খোঁজে তার অবস্থান করা বাড়িতে যায় স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন। কিন্তু তিনি আগেই পালিয়ে যাওয়ায় ওই বাড়ি লকডাউন করে দেওয়া হয়। ফেনীর সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ফেনী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিরিন আক্তার জানান,  সোমবার (২৩ মার্চ) সকালে ওই ব্যক্তি নিজেই করোনা ভাইরাস শনাক্তের জন্য ঢাকার রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) যান । এর আগে তিনি ফেনী থেকে একটি স্টার লাইন পরিবহণ করে ঢাকায় যাচ্ছিলেন। পতিমধ্যে ওই পরিবহণের নিয়ন্ত্রণ নেন আইনশৃংখলা বাহিনী স্বাস্থ বিভাগ।

ওই ব্যক্তির পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ভোর ৫টায় তিনি আইইডিসিআরে পৌঁছান। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের দেখা পান তিনি। তখন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা তাকে একটি কার্ড নিয়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঠান।

সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, তিনি কুর্মিটোলা হাসপাতালে অবস্থান করছেন।

ওই রুগি পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, রাজধানীর নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির অফিস সহকারী ছিলেন।

ফেনী সদর উপজেলার পাঁচগাছিয়া বাজারে ফেনী-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে রোববার (২২ মার্চ) রাতে ওই ব্যক্তি অবস্থান করা সেতু কপোরেশন বিল্ডিংটি ‘লকডাউন’ করে স্বাস্থ্য বিভাগ।তবে তা কেউ মানছে না বলে স্থানীয় অদিবাসী রানা  অভিযোগ করেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *