ফেনীতে আদালতের কাজে বাধা দেওয়ায় অসাধু ব্যবসায়ীর ২ লাখ টাকা জরিমানা ও দণ্ড

 
নিজস্ব প্রতিনিধি>>
ফেনীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাজে বাধা দেওয়ার ঘটনায় মোহাম্মদ আলম নামে এক ব্যবসায়ীকে কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মায়াবী ফ্যাশনে ভারতীয় চোরাচালানের শাড়ি থাকায় আরও এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
 
মঙ্গলবার (২২ মে) দুপুর আড়াইটার দিকে শহরের মিজান রোড়ের গ্র্যান্ড হক টাওয়ারের মায়াবী ফ্যাশনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাজে বাধা দেওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে বিকেল ৫টার দিকে তাকে জেল-জরিমানা করা হয়।
 
পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুরে শহরের গ্র্যান্ড হক টাওয়ারের মায়াবী ফ্যাশনে অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা। এসময় শাড়ির চালানের বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারায় প্রতিষ্ঠানের মালিক আলমকে সাতদিনের কারাদণ্ড ও জরিমানা দেন আদালত।
 
এ সময় মার্কেটের অপর ব্যবসায়ীরা জোর করে আসামিকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের গাড়িতে হামলা চালাতেও চেষ্টা চালান।
 
এছাড়াও সংগঠিত হয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন ব্যবসায়ীরা। একপর্যায়ে তারা ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারককে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক পিকেএম এনামুল করিম ও ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদ খান চৌধুরীর নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
 
ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *