ফুলগাজীতে মেয়েকে গরম তরকারি ছুড়ল পাষণ্ড বাবা

 

নিজস্ব প্রতিনিধি :

ফুলগাজীতে নিজের মেয়ের মুখে ও শরীরে গরম তরকারি মেরে ঝলসে দিলেন বাবা ছাইদুল হক (৫০) । এঘটনায় মেয়ের মা বাদী হয়ে অভিযোগ করলে ফুলগাজী থানার পুলিশ রাতেই পিতাকে গ্রেপ্তার করে।

গত শুক্রবার রাতে উপজেলার জিএমহাট ইউনিয়নের নুরপুর গ্রামে এঘটনাটি ঘটে।

 

ছাইদুল হকের স্ত্রী ফুলজাহান বেগম অভিযোগ করে বলেন, তাঁর স্বামী একজন বখাটে প্রকৃতির লোক। ঘরে তাঁর স্ত্রী সন্তান থাকা সত্ত্বেও সে আবার বিয়ে করতে চায়। এনিয়ে ঘরে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। মাঝে মাঝে সে ঘরের জিনিসপত্র ও ভাংচুর করেন এবং কি তাদের মারধরও করেন।

গত শুক্রবার রাতে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ৮ম শ্রেণীর স্কুল পড়ুয়া মেয়ের মুখে চুলোর গরম তরকারি মেরে মেয়ের মুখ ও বুকে ঝলসে দেয়। স্হানীয়রা উদ্ধার করে মেয়েকে ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 

এঘটনায় মেয়ের মা ফুলজাহান বেগম বাদী হয়ে গত শনিবার (৭জুলাই) ছাইদুল হককে আসামী করে মামলা দায়ের করলে পুলিশ  রাতেই তাকে গ্রেপ্তার করেন।

জিএমহাট ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য শিপন জানান, ছাইদুল হককে নিয়ে এলাকায় বেশ কবার সালিশি বৈঠক ও বসে। এবং তাকে সতর্কও করা হয়েছিল। সে কোনও কিছুর তোয়াক্কা না করে ফের বেপরোয়া হয়ে ওঠে।

ফুলগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.হুমায়ূন কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রোববার ৮ জুলাই আসামী ছাইদুল হককে ফেনীর বিচারিক হাকিম আদালতের মাধোমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *