ফাজিলপুরে যৌতুকের দাবীতে নির্যাতন, চিকিৎসাধীন অবস্থায় গৃহবধূর মৃত্যু, আটক-৩

নিজস্ব প্রতিনিধি, ১৬ নভেম্বর
ফেনীর ফাজিলপুরে যৌতুকের নির্মম নির্যাতনের শিকার মৃত্যর লড়ে ৮দিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকল কলেজে গৃহবধূ রাশেদা আক্তার (৩০)।  রোববার রাতে ওই গৃহবধুর মৃত্যু হয়।এ ঘটনায় পুলিশ ২ নারীসহ ৩ জনকে আটক করছে।
নিহত ফেনী গৃহবধূ সদর উপজেলার দক্ষিন  ফাজিল পুর গ্রামের ওমান প্রবাসী রায়হানউদ্দিন রুবেলের স্ত্রী। এ ঘটনায় ওই গৃহবধুর বাবা আবুল কালাম বাদী হয়ে শাশুড়ী, দেবর ও ননদসহ ৭ জনকে আসামী করে ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে।
 মামলার এজাহার সুত্র জানায়, প্রায় ৩ বছরআগে ফেনী সদর উপজেলার উত্তর ফাজিলপুর লস্কর তালুক এলাকার আবুল কালামের মেয়ে রাশেদা আক্তারের সাথে দক্ষিন ফাজিলপুর গ্রামেরমৃত আবুল খায়েরের ছেলে রায়হান উদ্দিন রুবেলের বিয়ে হয়। তাঁদের দুই বছরের একটি ছেলেও রয়েছে। রাশেদার স্বামী উদ্দিন রুবেল প্রবাসে থাকাকালে তার মাস হপরিবারের অন্যরা প্রায়সময় যৌতুকেরজন্য রাশেদাকে নানাভাবে গালমন্দ ও নির্যাতন করতো। এ ছাড়া স্বামীর অনুপস্থিতির সুযোগে দেবর রাশেদ উদ্দিন রনি বিভিন্ন সময় কু প্রস্তাব দিত। এতে রাশেদা সাড়ানা দেওয়ায় সেও ক্ষিপ্ত হয়। গত ৭ নভেম্বর সন্ধ্যায় রাশেদাকে তার বাবার বাড়ী থেকে দুইলাখ টাকা যৌতুকের জন্য চাপ দেয় শাশুড়ীসহ পরিবারের লোকজন। এ নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে শাশুড়ীসহ সবাই গৃহবধু রাশেদাকে কিলঘুষি ও পিঠিয়ে গুরুত্বর জখম করে । এক পর্যায়ে তারা রাশেদার মাথা ধরে দেওয়ালের সাথে আঘাত করে। এতে সে মারাত্মকভাবে আহত হয়।
ঘটনার পর প্রথমে এলাকার একজন পল্লীচিকিৎসক দেখানো হয়। খবর পেয়ে গৃহবধু রাশেদার বাবারা শেদাকে শশুর বাড়ী থেকে নিয়ে ফেনীরএকটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করে।এখানে অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। সেখানে রোববার গভীর রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাশেদা মারা যায়। ফেনী সদর মডেল থানার অফসার ইনচার্জ (ওসি) মো.আলমগীর হোসেন জানান, যৌতুকের দাবীতে গৃহবধূ নির্যাতন ও মৃত্যুর ঘটনায় মামলা হয়েছে। তিন জনকে আটক করা হয়েছে।তদন্তক্রমে আইন গত ব্যবস্থা নেওয়াহবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *