ফাজিলপুরে সূর্যমুখী ও মৌচাষে সম্ভাবনার হাতছানি

নিজস্ব প্রতিনিধি,
ফেনী সদর উপজেলার ফাজিলপুর ইউনিয়নের শিবপুর সূর্যমুখী ও মৌচাষে মধু আহরণের নীরব বিপ্লবের সম্ভাবনা দেখা গেছে । একদিকে ফুলে ফলে ভরে গেছে। অন্য দিকে ফুল থেকে মধু আহরণ করা যাচ্ছে। এতে উভয় লাভবান হচ্ছে কৃষকরা।
সরকারি প্রণোদনা সে পাশাপাশি স্বল্প পুঁজি দিয়ে এখানকার কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। মৌ চাষের পাশাপাশি, মধু চাষ করে আনন্দে উদ্বেলিত। সূর্যমুখী চাষে শফিউল্লাহ ফেনীর তালাশকে জানান , ৩০ শতক জমিতে সূর্যমুখী চাষ করেছেন, জীবনের এই প্রথম তিনি সূর্যমুখী চাষ করেছেন। এতে তার খরচ হয়েছে প্রায় চার হাজার টাকা। তিনি আশা করছেন এই ফলনে লাভবান হবেন। যদি ফলনে লাভবান হন আগামী বছর তিনি সূর্যমুখী চাষের পাশাপাশি মৌচাক করবেন।

অপরদিকে মৌচাষি মেজবাহ উদ্দিন শামীম, ফেনীর তালাশকে জানান উপজেলা কৃষি অফিস ফেনী সদর এর সহায়তায় প্রাপ্ত ৪ টি মৌ বক্সে মধু সংগ্রহ হয় ৪৫ কেজি যার বাজার মুল্য ৮শত টাকা দরে তিন হাজা ৬শত টাকা পরিবহন ও পরিচর্যা বাবত খরচ হয় ৭ হাজার ৫ শত টাকা। লাভ হবে প্রায় ২৮ হাজার টাকা।

গতকাল বুধবার ২৪ মার্চ ফেনী সদর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে রাজস্ব খাতের অর্থায়নে বাস্তবায়িত সূর্যমুখী প্রদর্শনীর মাঠ দিবস ও প্রদর্শনীর মাঠে স্থাপিত ইব্রা মৌ খামারের মৌ বক্স থেকে মধু আহরণ শুভ উদ্ভোধন করা হয়।ফাজিল পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মজিবুল হক রিপনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা কৃষি অফিসার শারমিন আক্তার, বিশেষ অতিথি কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আহসান হাবিব, স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপসহকারী কৃষি অফিসার মোহাম্মদ আবু তৈয়ব।
বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউপি সদস্য মোঃ আবু ইউছুফ।

সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমীন আক্তার বলেন, এই অঞ্চলে সূর্যমুখী আবাদ সম্ভাবনা বাড়াচ্ছে। গত বছরের তুলনায় এবার অনেক বেশি সূর্যমুখীর আবাদ হয়েছে। সূর্যমুখী তেলের চাহিদা থাকায় বীজ থেকে তেল উৎপাদন করে কৃষক ভালো দাম পাবেন। এছাড়া অনেক নতুন কৃষকের কাছে বীজ বিক্রি করতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, সূর্যমুখী ফুল থেকে মানসম্মত মধু সংগ্রহ করা যায়। সে লক্ষে একজন মধু চাষি ক্ষেতগুলোর পাশে ভ্রাম্যমাণ মৌ বক্স স্থাপন করেছেন। মধু আহরণের জন্য কৃষি অধিদপ্তর হতে প্রশিক্ষিত ও রেজিস্ট্রার মৌ চাষি মধু সংগ্রহ করছেন। মধু সংগ্রহের জন্য মৌ বক্স স্থাপন করলে পরাগায়নের ফলে ফলন ২০ থেকে ২৫ ভাগ বেশি হয়। এজন্য কৃষকরা মৌ বক্স স্থাপনে সহযোগিতা করেন।


অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় করেন উপসহকারী কৃষি অফিসার কাজী মনছুর আহমদ। উপস্থিত ছিলেন ইব্রা মৌ খামারের সত্ত্বাধিকারী মেজবাহ উদ্দিন শামীম প্রমূখ । মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে প্রায় ৭০জন কৃষক উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *