প্রধানমন্ত্রীর বিকৃতি ছবি মোবাইলে রেখে বেকায়দায় পরশুরামের স্কুলের প্রধান শিক্ষক

পরশুরাম প্রতিনিধি
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাছিনার বিকৃতি ছবি নিজের ব্যাবহৃত স্মাট ফোনে রাখার অভিযোগে প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো বেলাল হোসেন কে শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) রাত ৯ টার দিকে পুলিশের কাছে সোপর্দ্দ  করেছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।
পরে স্থানীয় ভাবে সালিশ বৈঠকের পর তাকে ছেড়ে  দিয়েছে পুলিশ। বেলাল হোসেন পরশুরাম উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের সত্যনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, তার বাড়ী উপজেলার দক্ষিণ কাউতলী গ্রামে।
পুলিশ ও প্রত্যাক্ষদর্শী সুত্রে জানান.  শুক্রবার রাত সাড়ে ৮ দিকে উপজেলার পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেলের সাথে একই দলের সমর্থক তুহিনের সাথে পোষ্ট অফিস রোডে রাতে মারা মারির ঘটনা ঘটে,এই সময় প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো বেলাল হোসেন তার স্মাট ফোন দিয়ে মারামারির ভিডিও ধারণ করে, স্থানীয় কাউন্সিলর নিজাম উদ্দিন সুমন ওই শিক্ষকের স্মাট ফোন জব্দ করে, তার মোবাইলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাছিনার একাধিক বিকৃতি ছবি গ্যালারিতে দেখতে পায়, জনপ্রতিনিধিরা শিক্ষক বেলাল হোসেন কে পরশুরাম থানার ওসি মো শওকত হোসেনের হাতে সোপর্দ্দ করেন।
সত্যনগর সরবারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বেলাল হোসেন আটককৃত অবস্থায় জানান ছবিগুলি ফেসবুকে পাওয়ার পর নিজের গ্যালারিতে সেভ করে রাখেন।
পরশুরাম থানার ওসি মো শওকত হোসেন জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাছিনার বিকৃতি ছবি রাখার অভিযোগে স্কুল শিক্ষক কে পুলিশে দিয়েছিল, পরে মিমাংশার মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *