পরশুরামে একই রাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল ও দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

 পরশুরাম :

পরশুরাম বাজারে একরাতে তিনটি প্রতিষ্ঠান থেকে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে নগদ টাকা, কম্পিউটার, মোবাইল ফোনসহ মুল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায়। সোমবার (১২ নভেম্বর) রাতে পরশুরাম বাজারের বিভিন্ন সড়কে এ চুরির ঘটনা ঘটেছে।
বাজার বনিক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে বনিক সমিতির লোকজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানের মালিক ও বনিক সমিতির নেতারা জানান, সোমবার গভীর রাতে পরশুরাম বাজারের হাসপাতাল রোড অবস্থিত বর্ণমালা কিন্ডার গার্ডেন তালা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে আলমিরা থেকে নগদ ২৭ হাজার টাকা, একটি কম্পিউটারসহ বেশ কিছু মুল্যবান সামগ্রী নিয়ে যায়। পরে চোরের দল হাসপাতালে অফিস সহকারীর কক্ষের জানালা ভেঙ্গে অফিসের কম্পিউটার চুরির চেষ্টা করে । একই সময় হাসপাতালে গেইটে অবস্থিত নিরিবিলি কনফেকশনারী দোকানের তালা ভেঙ্গে নগদ ৩০ হাজার টাকা, সিমকার্ড, সিগারেট, মোবাইল সেটসহ মূল্যবান সামগ্রী নিয়ে যায়।
এছাড়াও গত সপ্তাহে পরশুরাম পৌরসভার সামনে থেকে আবু তাহের ষ্টোর থেকে নগদ টাকাসহ বিভিন্ন মুল্যবান জিনিসপত্র চুরি করে নিয়ে যায়।
এদিকে গত কয়েকমাস ধরে পরশুরামের বিভিন্নস্থানে আশংকাজনকভাবে চুরির ঘটনা ঘটে যাওয়া গত আইন-শৃংখলা সভায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও কমিটির সদস্যরা চুরি ঠেকাতে পুলিশকে কার্যকরী ব্যাবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন।

পরশুরাম বাজার বনিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. লোকমানুজ্জামান আল আজাদ জানান চুরির ঘটনা শুনে মঙ্গলবার সকালে বনিক সমিতির নেতাদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, তিনটি প্রতিষ্ঠান থেকে একই কায়দায় তালা ভেঙ্গে কম্পিউটার , নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায়।

পরশুরাম উপজেলা স্বাস্থ্য সহকারী মো. ইছমাইল হোসেন জানান, চোরের দল অফিসের জানালার তালা ভেঙ্গে কম্পিউটার নিয়ে যাবার চেষ্টা করে কিন্তু মনিটর নিচে পরে শব্দ হওয়ায় কম্পিউটার রেখে পালিয়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *