নির্যাতিত শিশু প্রিয়াংকার জবানবন্দি রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি >>

ফেনীতে নির্যাতিত শিশু প্রিয়াংকার উন্নত চিকিৎসায় জেলা সদর হাসপাতালে ৬ সদস্যের মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। টিম সদস্য শনিবার বৈঠকে বসে তার চিকিৎসার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন।

এদিকে আদালতে শিশু প্রিয়াংকার ২২ ধারায় জবানবন্ধী প্রদান করেন।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ও সিভিল সার্জন ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির জানান,শিশু প্রিয়াংকার চিকিৎসার জন্য হাসপাতালের সহকারি পরিচালক ডা. হাবিব-উল-করিম টিমের নেতৃত্বে রয়েছেন। টিমের অন্য সদস্যরা হলেন আরএমও ডা. আবু তাহের, কনসালটেন্ট (সার্জারি) ডা. কামরুজ্জামান, কনসালটেন্ট(শিশু) ডা.জাহাঙ্গীর আলম, কনসালটেন্ট (চর্ম) ডা.আবুল বশর ও কনসালটেন্ট (চক্ষু) ডা. ব্রজ গোপাল পাল। টিমের সদস্যরা আজ একটি বৈঠকে বসবেন। ওই বৈঠকের চিকিৎসার পদ্ধতি নির্ধারণ করা হবে।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে শিশু প্রিয়াংকার ২২ ধারায় জবানবন্ধী গ্রহণ করা হয়। জবানবন্ধীতে সে ঘটনার বর্ণনা দেয়। এর আগে বুধবার রাতে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে

মামুন মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় শাহানা আক্তার শাহেনী,আবদুল্লাহ, অমিত দাস, মুন্নিকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়।

প্রসঙ্গত;শিশু প্রিয়াংকাকে মোমবাতির ছ্যাকা সহ বিভিন্ন কায়দায় নির্যাতন করা হতো। ফেনী সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়নের গজারিয়া কান্দি গ্রাম থেকে সোমবার তাকে এক প্রতিবেশী উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। বিষয়টি জানাজানি হলে অভিনেত্রী শাহানাসহ চারজন আটক হয়।া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *