ধর্মপুরে একরাতে ৩ বাড়ি ডাকাতি, ডাকাতের হামলায় আহত ৪

নিজস্ব প্রতিনিধি >>

ফেনী সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের মেম্বারের বাড়িসহ তিন বাড়িতে শনিবার গভীর রাতে দূর্ধর্ষ ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে। ডাকাতরা প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এসময় ডাকাতদের হামলায় চারজন আহত হয়েছে।

 

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ওই রাতে ধর্মপুর ইউনিয়নের বরইয়া গ্রামের দোকানদার আবুল কাশেম বাচ্চুর ঘরে ডাকাত দল হানা দেয়। এরপর ধর্মপুরের ইউপি মেম্বার মো. মিজানুর রহমানের বাড়িতে ও মজলিশপুর ব্যাপারী বাড়ির করিমের ঘরের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও মূল্যবান জিনিসপত্রসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুটে নেয়। মিজান মেম্বারের বাড়ীতে ডাকাতরা প্রতিরোধের মুখে পড়ে দুই জনকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় ডাকাতদের হামলায় মিজানুর রহমান মেম্বারের খালাতো ভাই জাহাঙ্গীর আলম, চাচাতো ভাই জালাল আহাম্মদ আহত হয়। আহতদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোক এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

 

ধর্মপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য মো. মিজানুর রহমান জানান, ঘরের ভিতরে ডাকাতদের মুখ খোলা ছিল ও তারা অপরিচিত।

 

ধর্মপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন শাকা জানান, বহিরাগত কিছু লোক রাত ২টার দিকে আমিনবাজার ও আশ্রয়ন এলাকায় জনৈক এম.পি প্রার্থীর পোস্টার লাগিয়েছে, এই বহিরাগত লোকদের সাথে ডাকাতদের একটা সম্পর্ক থাকতে পারে বলে এলাকাবাসী ধারনা করছে।

 

এবিষয়ে ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) শহিদুল ইসলাম বলেন, এরকম কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

উল্লেখ্য, গত এক মাস আগে একই ইউনিয়নের বরইয়া মধ্যপাড়া ইঞ্জিনিয়ার হালিমের বাড়ীতে ও একই গ্রামের সিএনজি অটোরিকসা চালক সোহাগের বাড়ীতে ডাকাতি সংগঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *