দৌলতপুরে স্কুলের সিলিং ফ্যান খুলে পড়ে শিক্ষার্থী আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি

ফেনী সদর উপজেলার দৌলতপুর হক বাহাদুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সিলিং ফ্যান ভেঙে পড়ে এক শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছে।  এ ঘটনায় আরও এক শিক্ষার্থী সামান্য আহত হয়েছেিএ সময় ওই কক্ষের পরীক্ষার্থীরা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে।আহতকে ফেনী আল কেমী হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসা দিয়ে বাড়ীতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।  সোমবার বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণীর নির্বাচনী পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে সকাল ১১.০০ টায় এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষার্থী ৮ম শ্রেণীর রোকসানা ইয়াছমিন। সে নেয়ামতপুরের ওহিদুন্নবীর মেয়ে।
স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক সালাহ উদ্দিন মজুমদার বলেন, ৮ম শ্রেণীর নির্বাচনী পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে হঠাৎ একটি সিলিং ফ্যান খুলে নিচে ভেঙে পড়ে। তবে তা সরাসরি কারও মাথার ওপর পড়েনি। ভেঙে বেঞ্চের ওপর পড়ায় আঘাত কম লেগেছে। রোকসানার মাথা ও কানে আঘাত লাগে। তাকে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে পাঠানো হয়।
রোকসানার চাচাত ভাই রিগান জানান, স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারনে বহু দিনের পুরোনো ফ্যান সংস্কার না করাতেই এ দূর্ঘটনা ঘটেছে।
প্রধান শিক্ষক নুর নবী জানান, এ একটা দূর্ঘটনা। আমরা এখানকার স্থানীয় ইলেক্ট্রিশিয়ান দিয়ে কিছু দিন পরপর নিয়মিত বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও সংস্কার করে থাকি। আহত শিক্ষার্থীকে স্কুলের পক্ষ থেকে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
স্থানীয় সামাজিক সংগঠন মোহনা সমাজ কল্যাণ সংসদের সহ-সভাপতি জাকারিয়া সবুজ জানান, এটা একটা অনাকাঙ্ক্ষিত দূর্ঘটনা তবে এ ক্ষেত্রে স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতি রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা দরকার। যাতে ভবিষ্যতে কোন শিক্ষার্থীকে এ রকম দূর্ঘটনার শিকার হতে না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *