দেবীপুরে কৃষি জমিতে বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইনের খুঁটি নির্মাণের প্রতিবাদে মানববন্ধন

সদর প্রতিনিধি , 19 Agust 2020
কৃষকদের কোন নোটিশ বা ক্ষতিপূরণ না দিয়ে ফেনীতে কৃষি জমির উপর দিয়ে বাংলাদেশ পাওয়ার গ্রীড কোম্পানীর (পিজিসিবি) মেঘনাঘাট টু মদুনাঘাট ৪০০ কেভি বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইনের খুঁটি নির্মাণের প্রতিবাদে কৃষকরা মানববন্ধন করেছে। আজ বুধবার দুপুরে ফেনী সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়নের দেবীপুরে নির্মিতব্য বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইনের পাশে এসে ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিক ও কৃষকগণ মানববন্ধন করেছেন।
কৃষকদের দাবী, দেশের ও জনগণের স্বার্থে বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইন নির্মাণে তাদের কোন বাঁধা নেই, তবে বৈদ্যুতিক লাইন নির্মাণের ফলে তাদের ফসলী জমির যে ক্ষতি হবে-সে ক্ষতিপূরণ যেন তাদের দেওয়া হয়। অন্যথায় তারা তাদের ভ’মির উপর দিয়ে বৈদ্যুতিক লাইন নির্মাণ করতে দিবে না।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আরিফুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী উক্ত বৈদ্যুতিক লাইনের বৃহৎ খুঁটি/টাওয়ার আমাদের জমির উপর দিয়ে নির্মাণ করছে। এতে চাষাবাদ ব্যাহত হয়ে আমরা কৃষকগণ সর্বশান্ত হয়ে পড়বো। এতে অনেক কৃষক ভূমিহীন হয়ে পড়বেন। বৃহৎ লাইন ও খুঁটি নির্মিত হলে উক্ত ভূমি ব্যবহার অনুপযোগী, বসত বাড়ি নির্মাণ অযোগ্য হয়ে পড়বে। ভবিষ্যতে কৃষদের আর্থিক প্রয়োজনে উক্ত জমি বিক্রি করতে চাইলে তারা ন্যায্য মূল্য থেকে তারা বঞ্চিত হবেন।
কৃষক মো: নেয়ামত উল্লাহ ভূঁইয়া সোহেল বলেন, আমাদের মালিকানাধীন ফসলী ভূমির উপর দিয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের এরকম বৃহৎ একটি সঞ্চালন লাইন নির্মাণের পূর্বে আমাদের তথা ভূমি মালিকদের কোন প্রকার নোটিশ প্রদান বা অবগত করানো হয়নি। যা অত্যন্ত অমানবিক।
মানববন্ধনে কৃষকগণ অভিযোগ করেন, রাষ্ট্রীয় প্রয়োজনে জনগণের ভূমি ব্যবহার করলে তা অধিগ্রহণ করে মৌজা মূল্যের তিনগুন ক্ষতিপূরণ সরকার দিয়ে থাকেন। কিন্তু উক্ত ভুমিতে বিদ্যুতের বিশাল আয়তন বিশিষ্ট টাওয়ার স্থাপন, বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন প্রবাহিত হলেও বাংলাদেশ পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী (পিজিসিবি) কৃষকদের কোনো ক্ষতিপূরণ দেয়নি। এটি কৃষকের প্রতি নিষ্ঠুর আচরণ বটে। যা দরিদ্র কৃষকের প্রতি অবিচার, জুলুম ও নায্য অধিকার হরণের সামিল। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ক্ষতিপূরণ দেয়া না হলে কৃষকরা তাদের ভূমি রক্ষায় আন্দোলন অব্যাহত রাখবে বলে অন্যান্য কৃষকগণ জানান।
স্থানীয় কৃষক মো: মোমিনুল হক বলেন, এ এলাকায় কিছুদিন পূর্বে মাটির প্রায় ৪/৫ ফুট নিচ দিয়ে গ্যাস সঞ্চালন লাইন যায়। কর্তৃপক্ষ ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের যথাযথ ক্ষতি পূরণ প্রদান করেন। অথচ গ্যাসের লাইনটি মাটির নীচ দিয়ে যাওয়ায় ফসলি ভূমির কোন ক্ষতি হয়নি। ক্ষতিপূরণের জন্য আমরা শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাবো। যান দেব, তবু ভূমি দেবো না।
এ ব্যাপারে বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইনের নির্মাণ ঠিকাদার মো: সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী বলেন, আমরা ঠিকাদার, আমরা কাজ করতে এসেছি, কাজে বাঁধা দেওয়া হলে আমাদের ক্ষতি হবে। বসিয়ে বসিয়ে কর্মরতদের বেতন দিতে হবে। কৃষকরা সংশ্লিষ্ঠ প্রতিষ্ঠানের কাছে আবেদন-নিবেদন করে যদি তাদের জমির ক্ষতিপূরণ পায়, তাতে আমাদের কোন দ্বি-মত নেই। বরং এত আমরা খুশি হব।
প্রসঙ্গত; ইতোপূর্বে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকগণ ফেনী জেলা প্রশাসক, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, বাংলাদেশ পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী (পিজিসিবি), স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান ও ফেনী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *