এবার গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ ভাষা শহিদ সালাম স্মৃতি জাদুঘরের প্রহরীর বিরুদ্ধে

দাগনভূঞা প্রতিনিধি, ৬অক্টোবর

এবার গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে ভাষা শহিদ সালাম স্মৃতি গ্রন্থাগারের প্রহরী ও মাতুভূঞা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদের বিরুদ্ধে দাগনভূঞা  থানায় মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী ওই নারী।

অভিযোক্ত শেখ ফরিদ মাতুভূঞা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ভাষা শহিদ সালাম স্মৃতি জাদুঘরের কেয়ারটেকার।

দাগনভূঞা থানার ওসি আসলাম সিকদার ও এলাকাবাসী জানান, অভিযোগকারী নারী প্রবাসীর স্ত্রী সালাম নগর গ্রামের শেখ ফরিদ এর পাশের বাড়ির বাসিন্দা। গত ১ অক্টোবর ওই গৃহবধূ শেখ ফরিদ কিছু কথা আছে বলে তার ঘরে আসতে বলে। পরে ওই গৃহবধূ তার ঘরে গেলে শেখ ফরিদ দরজা বন্ধ করে তার উপর ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এসময় গৃহবধূর পরণের কাপড় চিড়ে যায়। পরবর্তীতে ঘটনাটি স্থানীয় এলাকাবাসী জানায় ওই গৃহবধূ ।৫ অক্টোবর সোমবার রাতে ওই ভুক্তভোগী নারী দাগনভূঞা থানা শেখ ফরিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।এদিকে  ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায়  শেখ ফরিদকে আওয়ামী লীগ বহিস্কার করা হয়েছে।

মাতুভূঞা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মামুন জানান,  ফেনী জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী এম,পির নির্দেশনা মোতাবেক দাগনভূঞা উপজেলা শাখার জরুরী সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে মাতুভূঞা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এর সাধারন সম্পাদকের পদ থেকে মোঃ ফরিদ অব্যাহতি প্রদান করা হয়।

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম সিকদার  জানান, আসামি শেখ ফরিদ কে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। বর্তমানে সে পলাতক রয়েছে।

দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবদীন মামুন জানান, শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে শেখ ফরিদকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *