আমনের ধানের বাজার মূল্য ভালো পাওয়ায়>সোনাগাজীতে বোরো ব্যাপক আবাদ

নিজস্ব প্রতিনিধি>

আমনের দাম ভালো পাওয়ায় ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার কৃষকরা বোরো আবাদ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। উপকূলীয় এ এলাকায় চলতি মৌসুমে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। প্রাকৃতিক দূর্যোগের ঘটনা না ঘটলে কৃষকের ঘরে উঠবে সোনার ফসল। বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষি বিভাগ। অপরদিকে প্রচুর মুনাফার স্বপ্ন দেখছেন চাষীরা। বিশেষজ্ঞদের মতে, কৃষকদের আবাদে সম্পৃক্ততা ধরে রাখতে হলে সরকারী সহযোগিতার পাশাপাশি ধানের ন্যায্য মূল্য রক্ষায় বাজার ব্যবস্থাপনায় নজরদারী করা জরুরী ।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, সোনাগাজী উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে এ বছর ৭ শত ৪৫ হেক্টর জমিতে বোরো ধান আবাদের ল্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও ইতোমধ্যে ১ হাজার ৪৫ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে।

উপজেলা সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. ইস্কান্দার হানিফ জানান, বোরো ধান চাষ উপযোগী আবহাওয়ার কারণে উপজেলার মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের মির্জাপুর, বগাদানা ইউনিয়নের বাদুরিয়া, চরদরবেশ ইউনিয়নের চরশাহাভিকারি, চরচান্দিয়া, চরমজলিশপুর ও নবাবপুর ইউনিয়নের গ্রামগুলোতে বেশী বোরো ধানের আবাদ হয়েছে।

মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের কৃষক করিম উল্লাহ মিয়া বলেন, উপজেলা কৃষি অফিস থেকে পরামর্শ ও সহযোগিতা নিয়ে আমরা উচ্চফলনশীল ব্রি-২৮, ব্রি-৫৮, ব্রি- ২৯ ও হাইব্রীড হিরা-২ জাতের ধানের আবাদ করেছি। আশা করি কোন ধরনের প্রকৃতিক বিপর্যয়ের কবলে না পড়লে আমরা এ বছর আশানুরূপ ভালো ফসল পাবো।

চরগনেশ গ্রামের কৃষক আবু সুফিয়ান বলেন, আমন ধান বিক্রির সময় ভালো দাম পাওয়ায় কৃষকরা বোরো ধান চাষে অনেক বেশী উৎসাহী হই। আমি এ বছর প্রায় ২০ একর জমিতে বোর ধান লাগিয়েছি।

সোনাগাজী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সাজ্জাদ হোসেন মজুমদার জানান, আমরা শুরু থেকে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের সার্বিক পরামর্শ দিয়ে আসছি। বোরো ধান চাষে আগ্রহী করার জন্য উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কৃষকে সরকারিভাবে প্রদর্শনী, বিনামূল্যে বীজ ও সার সরবরাহ করেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *