আবেদনের দু’ঘন্টায় বিদ্যুৎ সংযোগ !

স্টাফ রিপোর্টার :
দাগনভূঞা উন্নয়ন মেলায় পল্লী বিদ্যুতের তাৎক্ষণিক সেবা কার্যক্রম (ইনস্ট্যান্ট সার্ভিস) গ্রাহকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। মেলার প্রথম দিনেই পল্লী বিদ্যুতের স্টলে বিভিন্ন সেবা প্রত্যাশী গ্রাহকের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে।
ফেনী পল্লী বিদ্যুত সমিতি দাগনভূঞা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলাম জানান, দাগনভূঞা আতাতুর্ক মডেল হাই স্কুল মাঠে ১১ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া তিন দিনের উন্নয়ন মেলায় পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহকদের তাৎক্ষণিকভাবে বিশেষ কিছু সেবা প্রদান করা হচ্ছে। বিশেষ এই সেবা কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে, নতুন মিটারের জন্য আবেদনের সাথে সাথেই বিদ্যুত সংযোগ প্রদান, মিটার সংক্রান্ত যে কোনো সমস্যা, ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুত লাইন মেরামত, পুরনো পিডিবির গ্রাহকদের মিটার পরিবর্তনসহ বিভিন্ন ধরনের সেবা।
এদিকে পল্লী বিদ্যুতের বিশেষ এই সেবা কার্যক্রম গ্রাহকদের মাঝে বেশ সাড়া ফেলে দেয়। মেলা শুরু হতে না হতেই পল্লী বিদ্যুতের স্টলে সেবা প্রত্যাশী গ্রাহকরা ভিড় জমাতে থাকে। ফেরদৌস আরা নামে একজন গ্রাহক জানান, তিনি নতুন মিটারের জন্য আবেদন করার দুই ঘন্টার মধ্যেই বিদ্যুত সংযোগ পেয়েছেন। এতো দ্রুত বিদ্যুত সংযোগ পাবেন-এটি তার ভাবনায়ও ছিল না। অতি দ্রুততার সাথে সেবা প্রদানের জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।
পল্লী বিদ্যুত দাগনভূঞা আঞ্চলিক কার্যালয়ের সহকারী মহাব্যবস্থাপক(এজিএম) প্রকৌশলী মোহাম্মদ জুনায়েদ জানান, মেলার প্রথম দিনে তারা নতুন মিটারের জন্য ৪৫টি আবেদন পেয়েছেন। এর মধ্যে বিকেল ৩টার মধ্যে আবেদন করেছেন এমন ২০ জনকে ওই দিনই বিদ্যুত সংযোগ প্রদান করা হয়েছে। অন্যদের পরদিন সংযোগ প্রদান করা হবে। এছাড়াও প্রথম দিনে ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুত লাইন, লাইনের ওপরে থাকা গাছ কাটা, মিটার রিডিং, মিটার পরিবর্তনসহ বিভিন্ন বিষয়ে বেশ কিছু অভিযোগ ও সমস্যার সমাধান করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে গত কয়েক বছর থেকে দেশের সব জেলা ও উপজেলায় একযোগে ‘উন্নয়ন মেলা’ অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমণ্ত্রী শেখ হাসিনা গণ ভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জেলা ও উপজেলায় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত তিন দিনব্যাপী এ উন্নয়ন মেলার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *