আজ দাগনভূঞায় পৌর নির্বাচন

ফেনী প্রতিনিধি, ১৬ জানুয়ারি

দাগনভূঞা পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণের জন্য ১৩টি কেন্দ্রে নির্বাচনী সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুর আড়াইটার পর থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্র পৌছে দেয়া হয়েছে ইলেকট্রনিক্স ভোটিং মেশিন (ইভিএম) সহ সকল ধরনের নির্বাচনী সামগ্রী। ইতোমধ্যেই এ নির্বাচনকে ঘিরে সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্য করেছে নির্বাচন কমিশন ও স্থানীয় প্রশাসন। দ্বিতীয় ধাপের পৌর নির্বাচনে শনিবার সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত এ পৌরসভায় ভোট গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. কামাল হোসেন জানান, নির্বাচনের প্রতিটি ভোট কক্ষে একটি করে ৭৩টি ইভিএম দেয়া হয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি কেন্দ্রে একটি করে অতিরিক্ত ১৩টি ইভিএম দেয়া হয়েছে। কোন কারণে ইভিএম মেশিনে যান্ত্রিক ক্রুটি দেখা দিলে তাৎক্ষণিক বিকল্প ইভিএম মেশিন ব্যবহার করা যাবে। ইতোপূর্বে ভোট গ্রহনের জন্য কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়েছে। স্ব স্ব কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসারের নেতৃত্বে পোলিং এজেন্ট, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নির্বাচনী সামগ্রী গ্রহণ করেন।

 

 

দাগনভূঞা উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, শনিবার দ্বিতীয় ধাপে দাগনভূঞা পৌরসভার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ১৩টি ভোট কেন্দ্রের ৭৩টি ভোটকক্ষে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট চলবে। দাগনভূঞা পৌরসভায় ২৫ হাজার ৭২ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১২ হাজার ৫শ ৬৬ জন ও নারী ভোটার ১২ হাজার ৫শ ৬ জন। নির্বাচনে ১৩টি কেন্দ্রে ১৩ জন প্রিজাইডিং অফিসার ও ৭৩ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন। প্রতিটি কক্ষে দুই জন করে মোট ১৪৬ জন পোলিং অফিসার থাকবেন।

 

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা আক্তার তানিয়া জানান, ১৫ জানুয়ারী রাত ১২ টা থেকে শুরু হয়ে ১৬ জানুয়ারী রাত ১২ পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় ট্রাক ও পিকআপ ভ্যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। এছাড়াও ১৪ জানুয়ারী রাত ১২ টা থেকে ১৭ জানুয়ারী সকাল ৬ টা পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। রির্টানিং অফিসার কর্তৃক অনুমোদিত এজেন্ট ও পর্যক্ষেকদের জন্য এ বিধি শিথিলযোগ্য। এছাড়া নির্বাচন কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, সাংবাদিক, এম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ ও গ্যাস কার্যক্রমে ব্যবহৃত যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না। শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠভাবে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কঠোর অবস্থানে থাকবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

 

 

জেলা রিটানিং কর্মকর্তা মো. নাসির উদ্দিন জানান, পৌরসভায় ২৫ হাজার ৭২ জন ভোটার রয়েছে। ৪ মেয়র প্রার্থী ও ৫ টি ওয়ার্ডে ১৪ জন কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

 

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নাশকতা এড়াতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। নির্বাচনে পুলিশের মোবাইল টিম ও স্ট্রাকিং ফোর্স মাঠে থাকবে। এছাড়াও ফেনী জেলার ডিবি পুলিশ ও ডিএসবি নির্বাচনী মাঠে থাকবে। পুলিশের পাশাপাশি ম্যাজিস্ট্রেট র‌্যাব ও বিজিবি দায়িত্ব পালন করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *